যদিও বাংলাদেশ কখনো বিশ্বকাপ ফুটবলে অংশ নিতে পারেনি, তবুও গ্রহের সবচে জমজমাট এই ক্রীড়ার আসর নিয়ে আমাদের আগ্রহ উদ্দীপনার কমতি নেই। বিশেষত ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার সমর্থকদের কল‍্যাণে এই দেশে বিশ্বকাপ উন্মাদনা কোন কোন বিশ্বকাপ খেলুড়ে দেশের চেয়েও বেশি। শুধু যে ব্রাজিল আর্জেন্টিনা, তা নয়। বাংলাদেশে জার্মানী, ইতালি ও স্পেনের সমর্থক কম নয়। ধর্মীয় কারণে সৌদি আরবেরও উল্লেখযোগ‍্য পরিমাণ সমর্থক আছে।

এই সুযোগে বাংলাদেশে শীর্ষ জনপ্রিয় দুই ফুটবল খেলুড়ে দেশ সম্পর্কে কিছু জানাশোনা হোক। আজকের পর্ব আর্জেন্টিনা নিয়ে।

আসুন, দেখি কী কী জানা যায়ঃ

১. আর্জেন্টিনা শব্দের অর্থ রৌপ‍্য

‘আর্জেন্টিনা’ শব্দটি এসেছে ল‍্যাটিন ‘আর্জেন্টাম’ থেকে, যার বাংলা রৌপ‍্য বা রুপালী। নিন্দুকেরা বলে, যে দেশ নামেই রৌপ‍্য, সে স্বর্ণপদক জিতবে কিভাবে!

২. ডিভোর্সের হার বেশি

দক্ষিণ আমেরিকার দেশগুলোর মধ‍্যে আর্জেন্টিনায় ডিভোর্সের সংখ‍্যা সর্বোচ্চ, বিশ্বাসঘাতকতার প্রবণতাও!

৩. পৃথিবীর প্রথম অ‍্যানিমেশন মুভির নির্মাণ

১৯১৭ সালে আর্জেন্টিনার Quirino Cristiani সর্বপ্রথম অ‍্যানিমেশন মুভি নির্মাণ করেন। El Apóstol নামের ৭০ মিনিট দৈর্ঘ‍্যের এই মুভিতে মোট ৫৮ হাজার ফ্রেম ছিলো! ১০০ বছর আগে ৫৮ হাজার ফ্রেমের অ‍্যানিমেশন মুভি, ভাবা যায়!! – সূত্র

৪. রেডিও, টিভি ও সিনেমাপ্রিয় জাতি

আর্জেন্টিনার মানুষ প্রতি সপ্তাহে গড়ে ২.১ ঘন্টা রেডিও শোনে। এই হার পৃথিবীতে সর্বোচ্চ। টিভি দেখার প্রবণতাও আর্জেন্টিনায় বেশি। এবং পৃথিবীতে মুভি দেখার পেছনে সময় ব‍্যয় করার জনপ্রতি হার আর্জেন্টিনাতে সবচে বেশি। অর্থাৎ আর্জেন্টিনার মানুষ ভীষণ বিনোদনপ্রিয়।

৫. রেডিও সম্প্রচারে প্রথমদিকে

সর্বপ্রথম বেতার সম্প্রচারকারী দেশগুলোর মধ‍্যে আর্জেন্টিনা অন‍্যতম। ১৯২০ সালে দেশটিতে প্রথম স্রোতাদের উদ্দেশ‍্যে বেতার অনুষ্ঠান সম্প্রচারিত হয়। সম্প্রচার সময় আর্জেন্টিনায় মাত্র ২০টি রেডিও ছিলো। ২০টি রেডিওতে শ’খানেক মানুষ বেতার অনুষ্ঠান শুনতে পান।

৬. ট‍্যাঙ্গো নাচ

সবচে যৌন আবেদনময় শারিরীক ভাষার নাচ হিসেবে স্বীকৃত Tango এর উৎপত্তি আর্জেন্টিনার রাজধানীতে। এই নাচ নিয়ে একটি কথা প্রচলিত আছে, “এমনভাবে নাচো, মনে করে আশেপাশে কেউ নেই, শুধু তোমরা দু’জন।”

৭. ওদের খিদে পায় না

ক্ষুধামন্দায় শীর্ষ দেশগুলোর মধ‍্যে জাপানের পর আর্জেন্টিনার স্থান। এবং ক্ষুদামন্দায় ভোগা প্রতি আটজনের একজন পুরুষ।

৮. অস্কারজয়ী ল‍্যাটিন দেশ

২০১৭ সাল পর্যন্ত ল‍্যাটিন আমেরিকান দেশগুলোর মধ‍্যে আর্জেন্টিনা ছিল একমাত্র অস্কার জয়ী দেশ। ১৯৮৬ সালে La Historia Oficial এবং ২০১০ সালে The Secret in Their Eyes সেরা বিদেশি চলচ্চিত্রের পুরস্কার জিতে। ২০১৭ সালে চিলির মুভি A Fantastic Woman অস্কার জয়ীর তালিকায় নাম লেখায়।

৯. নৌকা বিয়ার, ধানের শীষ বিয়ার

আর্জেন্টিনায় প্রতিটি রাজনৈতিক দলের নিজস্ব ব্র্যান্ডের বিয়ার (পানীয়, ভল্লুক নহে) আছে। আমাদের দেশে মদ হারাম (নিষিদ্ধ) হলেও মদখোর রাজনীতিবিদের অভাব নাই।

১০. সমকামীবান্ধব দেশ

২০১০ সালে ল‍্যাটিন আমেরিকান দেশগুলোর মধ‍্যে আর্জেন্টিনা সর্বপ্রথম সমকামী বিয়ের বৈধতা দেয়। সমকামীদের জন‍্য নিরাপদ দেশ হিসেবে আর্জেন্টিনা অন‍্যতম।

১১. প্রথম আঙ্গুলের ছাপ ব‍্যবহারকারী দেশ

বহু আগে থেকে আর্জেন্টিনা তথ‍্য ও প্রযুক্তিচর্চার সাথে নিজেদের সম্পৃক্ত রেখেছে। অপরাধী শনাক্ত করার কাজে সর্বপ্রথম আঙ্গুলের ছাপ ব‍্যবহৃত হয় আর্জেন্টিনায়, ১৮৯২ সালে। – সূত্র

১২. মদ ও মাংসের দেশ

ওয়াইন প্রস্তুতকারী দেশগুলোর মধ‍্যে আর্জেন্টিনা শীর্ষে। এবং গরুর মাংস উৎপাদনে তৃতীয়। প্রাণীহত‍্যার বিষয়টি বাদ দিলে মাংসের সাথে একটু মদ হলে ভালোই হয়!

১৩. ঈশ্বর ম‍্যারাডোনা!

আর্জেন্টিনার কিংবদন্তি ফুটবলার ম‍্যারাডোনার নামে তার ভক্তরা একটি ধর্ম তৈরি করেছে। ধর্মের নাম Iglesia Maradoniana. এই ধর্মের লক্ষাধিক অনুসারীও আছে। চাইলে আপনিও ম‍্যারাডোনা ধর্ম গ্রহণ করতে পারেন। – সূত্র

১৪. ওদের এত প্রেসিডেন্ট!

২০০১ সালে মাত্র ১০ দিনের মধ‍্যে ৫ বার প্রেসিডেন্ট বদল হয় আর্জেন্টিনায়। সেসময় ইতিহাসের সবচে কঠিন অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক সংকটের মুখে পড়ে আর্জেন্টিনা।

১৫. ঢাকা শহরে এমন রাস্তা কল্পনাও করা যায় না

 

Argentina, Buenos Aires, Avenida 9 de Julio and Obelisk

বিশ্বের সবচে প্রশস্ত অ‍্যাভিনিউ আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েনোস আইরেসে। ১ কিলোমিটার দীর্ঘ এবং ১১০ মিটার প্রশস্ত ৯ জুলাই (9 de Julio) নামের এই অ‍্যাভিনিউতে মোট ১৪ টি লেন রয়েছে। এবং দুই পাশে দুই লেনের দু’টি বাস সড়ক আছে। জাতীয় দিবসগুলোতে এখানে রঙ, মানুষ ও আলোর মিলনমেলা বসে।

১৬. তারা ‘ব্রাজিল চা’ খায়

আর্জেন্টিনার জাতীয় পানীয় এক ধরণের চা, যা Schinus terebinthifolius নামক গাছের কচি পাতা থেকে সংগ্রহ করা হয়। এই গাছের প্রচলিত নাম Brazilian pepper! – এই পানীয় সম্পর্কে জানুন

১৭. অবসাদগ্রস্থ মানুষেরা

পৃথিবীতে সবচে বেশি মনোচিকিৎসকের বাস আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েনোস আইরেসে। এই শহরে মনোবিদদের আলাদা জেলা (এলাকা) আছে, যার নাম Ville Freud. ২০১২ সালের হিসাব অনুযায়ী আর্জেন্টিনায় প্রতি ১ লক্ষ মানুষের বিপরীতে ১৯৬ জন মনোচিকিৎসক রয়েছে! – সূত্র

১৮. গিটার আকৃতির বন

Pedro Martin Ureta নামক এক প্রেমিক কৃষক তার অকালপ্রায়ত স্ত্রীর স্মরণে প্রায় দুই যুগের নিরলস পরিশ্রমে গড়ে করেন গিটারের আকৃতির এক বনভূমি। তার স্ত্রী মাত্র ২৫ বছর বয়সে জটিল রোগে মারা যান। – সূত্র

১৯. বাঁদরামি

আর্জেন্টিনার রেইনফরেস্টে এক ধরণের বানর (Howler monkey) আছে, প্রাণীকুলের মধ‍্যে যারা সবচে জোরে চিৎকার করতে পারে। এই জাতের পুরুষ বানরের বিস্ময়কর ভোকাল কর্ড আছে, যা দিয়ে তারা ভয়ানক উচ্চশব্দে চিৎকার করে। নিজেদের লোকেশন নিশ্চিত করার সময় এমন চিৎকার ব‍্যবহার করে, এমনিতে স্বাভাবিক স্বর ব‍্যবহার করে।

২০. আদিম মানুষের বাস

পৃথিবীতে আদিম মানুষের বসতির সবচে পুরোনো প্রমাণ আর্জেন্টিনার Cave of Hands. পাথরের গায়ে প্রায় ৯ হাজার ৪’শ বছর পুরোনো চিত্রকর্ম, যার প্রায় সবগুলোই হাতের চিত্র এবং বেশিরভাগ বাম হাত।

২১. নারীর জয় জয়কার

আর্জেন্টিনার মোট কর্মজীবী মানুষের ৪০ ভাগ নারী। দেশ চালানোয়ও নারীদের ব‍্যাপক অংশগ্রহণ। সরাসরি নির্বাচনে জিতে সংসদের প্রায় ৩০ ভাগ আসন নারীদের দখলে।

২২. ধর্মত‍্যাগী মুসলিম প্রেসিডেন্ট

১৯৮৯ সালে Carlos Saúl Menem এক সিরিয়ান মুসলিম আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্ট হওয়ার জন‍্য ইসলাম ধর্ম ত‍্যাগ করে খ্রিস্টান হোন। কারণ সে সময় সংবিধান অনুযায়ী রোমান ক‍্যাথলিক ছাড়া অন‍্য কোন ধর্মের মানুষ দেশের প্রেসিডেন্ট হতে পারতেন না। ১৯৯৪ সালে এই নিয়ম বাতিল করা হয়। – তার সম্পর্কে আরো

২৩. সবচে বড় ডাইনোসর

এখন পর্যন্ত সবচে বড় ডাইনোসর ফসিলের সন্ধান পাওয়া গেছে আর্জেন্টিনায়। পৃথিবীর বুকে দাপিয়ে বেড়ানো এই ডাইনোসরের নাম রাখা হয়েছে Argentinosaurus. ১৯৮৭ সালে সন্ধান পাওয়া ডাইনোসরটির আনুমানিক দৈর্ঘ্য ১৩০ ফুট এবং ওজন ৭৭ টন। – সূত্র

২৪. চে’র দেশে শিক্ষা মাঙ্গা

পৃথিবী বিখ‍্যাত কমিউনিস্ট বিপ্লবী চে গুয়েভারার জন্মভূমি আর্জেন্টিনায় সরকারি স্কুল বাস নেই। এমনকি সকল পর্যায়ের শিক্ষার্থীরা নিজেদের বই নিজেরা কিনতে হয়।

২৫. নো মোর মেসি

মেসির জন্ম শহরে কোন নবজাতকের নাম মেসি রাখা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ভবিষ‍্যতে একই নামে ভালো কোন ফুটবলার এলে বিভ্রান্তি হতে পারে, এমন অযুহাতে ২০১৪ সালে এই আইন প্রণয়ন হয়। – সূত্র

 

ব্রাজিল সম্পর্কে ২৫টি গুরুত্বপূর্ণ তথ‍্য

Facebook Comments

3 মন্তব্য

কিছু বলুন

দয়া করে মন্তব‍্য করুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.