কলা একটি অত‍্যন্ত পুষ্টিকর ফল ও সবজি। কলাতে আমিষ, শর্করা, চর্বি, আঁশ, ক‍্যালসিয়াম, ফসফরাস, আয়রনসহ অনেক গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টি উপাদান রয়েছে। পুষ্টির সাথে আপোষ করা যায় না। আপোষকারীরা জীবনে সফল হয় না। তাই কলা কিনতে হবে দেখে শুনে। আপনি যদি দেখেশুনে কলা কিনেন তাহলে কলাও আপনাকে দেখেশুনে রাখবে।

এক জরিপে দেখা গেছে বর্তমানে রাজধানীর ৪৩ শতাংশ মানুষ কারওয়ান বাজার থেকে কলা কিনেন। এটি একটি ভয়াবহ তথ‍্য। কারণ কারওয়ান বাজারের কলায় সমস‍্যা আছে। এই বাজারের কলা দেশ ও জাতির জন‍্য অত‍্যন্ত ক্ষতিকর। কেন ক্ষতিকর, তার ১০১টি কারণ আছে। কিন্তু আমরা কথা বলবো মাত্র ৭টি কারণ নিয়ে।

1

প্রথম কারণ

কারওয়ান বাজারে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কলা আসে। এর মধ‍্যে নরসিংদী, মুন্সীগঞ্জ, যশোর, বরিশাল, বগুড়া, রংপুর, জয়পুরহাট, কুষ্টিয়া, ঝিনাইদহ, মেহেরপুর অন‍্যতম। পরিসংখ‍্যান অনুযায়ী প্রায় ৮৫ভাগ কলা আসে বগুড়া থেকে। তাই এসব কলা কেনা যাবে না। কারণ আপনি যদি বগুড়া থেকে আসা এই কলা খান, তাহলে বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া ও তার পুত্রের প্রতি আপনার ভক্তি, শ্রদ্ধা ও আস্থা জন্ম নিতে পারে। এই ভক্তি, শ্রদ্ধা ও আস্থা থেকে আগামী নির্বাচনে আপনি ধানের শীষে ভোট দিতে পারেন। অর্থাৎ কারওয়ান বাজার থেকে কোনভাবেই কলা কেনা যাবে না। কারওয়ান বাজার থেকে কলা কিনলে বিএনপি ক্ষমতায় চলে আসবে।

2

দ্বিতীয় কারণ

সাধারণত প্রতিটি কলায় ০.৩ শতাংশ চর্বি থাকে। কিন্তু কারওয়ান বাজারের কলায় চর্বির পরিমান প্রায় ৯ শতাংশ। এই কলা খেলে আপনার হার্টে ফ‍্যাট জমে যাবে। তারপর অসুস্থ হবেন। এরপর হাসপাতালে ভর্তি হবেন। কয়েক মাসের বেড রেস্টে থাকতে হবে। সামনে নির্বাচন। অসুস্থ শরীর নিয়ে আপনি ভোটকেন্দ্রে যেতে পারবেন না। ভোটকেন্দ্রে যেতে না পারলে আপনি নৌকা মার্কায় ভোট দিতে পারবেন না। আপনি নৌকা মার্কায় ভোট দিতে না পারলে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসবে না। তাই কারওয়ান বাজার থেকে কলা কিনবেন না। কারওয়ান বাজার থেকে কলা কিনলে বিএনপি ক্ষমতায় চলে আসবে।

3

তৃতীয় কারণ

আপনি যখন কারওয়ান বাজারে কলা কিনতে যাবেন, তখন আপনার বাসা থেকে ফোন করে বলবে দ্রুত বাসায় যেতে। আপনার দাদু বাটিতে দুধ নিয়ে বসে আছেন। কলা নিয়ে গেলে দুধ কলা দিয়ে ভাত খাবেন। কিন্তু আপনি বাস পাবেন না। পেলেও উঠতে পারবেন না। বাসায় যেতে যেতে কলা পঁচে যাবে। তারপর পরিবারের সদস‍্যারা আপনাকে গালাগালি করবে। তখন ঢাকা শহরের প্রতি আপনার রাগ হবে। সড়ক যোগাযোগ ও পরিবহন মন্ত্রীর উপর রাগ হবে। আওয়ামী লীগের উপর রাগ হবে। সামনে ভোট। বোঝেনইতো ব‍্যাপারটা! রাগ করে যদি ধানের শীষে ভোট দিয়ে বসেন!! তাই কারওয়ান বাজার থেকে কলা কিনবেন না। কারওয়ান বাজার থেকে কলা কিনলে বিএনপি ক্ষমতায় চলে আসবে।

4

চতুর্থ কারণ

কলাতে আয়রন আছে। কারওয়ান বাজারের কলায় স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি আছে। এই কলা খেলে আপনি আয়রন ম‍্যান হয়ে যাবেন। আয়রনম‍্যান হয়ে গেলে আপনাকে এলিভেটেড এক্সপ্রেস ওয়ের কোন একটা পিলারে রড হিসেবে ব‍্যবহার করবে। তখন এটা নিয়ে ফেসবুকে সমালোচনা হবে। এটা নিয়ে আন্দোলন হবে। আয়রন ম‍্যানের কস্টিউম কিনতে বসুন্ধরা সিটি ও যমুনা ফিউচার পার্কে লাখ লাখ ফ‍্যানস ভিঁড় করবে। ফলে ঢাকা শহরে তীব্র যানজট হবে। তীব্র যানজটে ঢাকা শহর অচল হয়ে যাবে। ঢাকা শহর অচল হলে সরকারের পতন হবে। সুতরাং কারওয়ান বাজারের কলা কোনভাবেই কেনা যাবে না। কারওয়ান বাজার থেকে কলা কিনলে বিএনপি ক্ষমতায় চলে আসবে।

5

পঞ্চম কারণ

আপনারাতো জানেনই এনটিভির মালিকের নাম ফালু। ফালুকে নিয়ে নানান স্ক‍্যান্ডাল। জিয়া পরিবারের সাথে আন্তরিক যোগাযোগ। কারওয়ান বাজারে কলার আড়ত আর এনটিভির কৌনিক অবস্থান বরাবর এক সমকোন। নাসার বিজ্ঞানীরা বলেছেন, “এক সমকোনীয় যেকোন অবস্থান তীব্র আবেদন সৃষ্টি করে।” এই আবেদনের কারণে আপনি এনটিভির ভক্ত হয়ে যাবেন। ফলে ফালুরও ভক্ত হবেন। তারপর জিয়া পরিবারের সাথে আপনারও আন্তরিক সম্পর্ক স্থাপিত হবে। আগামী ইলেকশনে যার প্রভাব পড়বে। তাই কারওয়ান বাজার থেকে কলা কিনবেন না। কারওয়ান বাজার থেকে কলা কিনলে বিএনপি ক্ষমতায় চলে আসবে।

6

ষষ্ঠ কারণ

ঢাকা শহরের ৯৫ ভাগ মানুষ মিরপুরে বসরবাস করে। যাকেই জিজ্ঞাসা করা হয়, বলে “আমার বাসা মিরপুরে।” তার মানে আপনার বাসাও মিরপুরে। আপনি মিরপুর থেকে অফিসের কাজে পান্থপথে এসে যাওয়ার সময় কারওয়ান বাজার থেকে কাচকলা কিনবেন। ফেরার পথে মেট্টোরেলের নির্মাণকাজ জনিত তীব্র যানজটে পড়বেন। যানজটে থাকা অবস্থায় আপনার হাতের কাঁচা কলা পেকে যাবে। তারপর পঁচতে শুরু করলে আপনি সেটা মেট্টোরেলের নির্মান সাইটে ছুঁড়ে ফেলবেন। এরপর জ‍্যাম ছাড়ার আগেই সেখানে কলার বিচিতে চারা জন্মাতে শুরু করবে। কিছুক্ষণের মধ‍্যে সেটা বাগানে পরিণত হবে। তখন পার্শ্ববর্তী এক বহুতল দালানের ছাদ থেকে ছবি তুলে কোন এক বিএনপি সমর্থক সেটাকে ধানক্ষেত বলে চালিয়ে দিবে। “দেখুন আল্লাহর কী রহমত। হঠাৎ করে মিরপুরের রাস্তায় ধানের শীষের জয় জয়কার!” ক‍্যাপশন দিয়ে ফেসবুকে শেয়ার দিবে। তারপর লোকজন সেটা বিশ্বাস করবে। সামনে নির্বাচন। রিস্ক আছে। তাই কারওয়ান বাজার থেকে ভুলেও কলা কিনবেন না। কারওয়ান বাজার থেকে কলা কিনলে বিএনপি ক্ষমতায় চলে আসবে।

7

সপ্তম কারণ

কলা কেনা শেষে বাসায় যাওয়ার আগে কেউ একজন ফোন করে আপনার সাথে প্রেমের আউটসোর্সিং করতে চাইবে। এক ঝলক চিন্তা করে ফোনের ওপাশে থাকা ব‍্যক্তিকে বলবেন হাতের কাছে চন্দ্রিমা উদ‍্যানে আসতে। আপনি সেখানে যাবেন। তিনিও আসবেন। তারপর এলাকার এক ছোটবোনের হাতে ধরা খাবেন। ধরা খাওয়া শেষে মনে মনে তওবা করবেন। কিন্তু মন ভরবে না। মন চাইবে আরো ভালোভাবে তওবা করতে। আশেপাশে কোন মসজিদ বা পীরের মাজার না পেয়ে অগত‍্যা জিয়ার মাজারে গিয়ে কান্নাকাটি শুরু করবেন। তারপর ভয়ে ভয়ে বাসায় ফিরবেন। তার এক সপ্তাহ পর বুঝতে পারবেন এলাকার ওই বোন আপনার আউটসোর্সিং বিষয়ে কাউকে কিছু বলেনি। কারণ সেও আপনার হাতে ধরা খেয়েছে। তখন ওই এলাকার বোনকে ধন‍্যবাদ দেয়ার কথা ভুলে গিয়ে সব ক্রেডিট জিয়ার মাজারকে দিয়ে দিবেন। জিয়াকে পীর মানবেন। তার মুরিদ হয়ে যাবেন। সামনে ইলেকশন। নিশ্চয় ভোটটাও জিয়া পীরের স্ত্রী সন্তানকে দিয়ে দিবেন! এজন‍্য বলছি কারওয়ান বাজার থেকে কলা কিনবেন না। কারওয়ান বাজার থেকে কলা কিনলে বিএনপি ক্ষমতায় চলে আসবে।

 

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ
এই পোস্টটি পাবলিশ করার আগে সরকারপন্থী ছাত্র সংগঠনের কলাবাগান শাখার মৌখিক অনুমোদন নেয়া হয়েছে। মৌখিক অনুমোদনের কোন অডিও কিংবা ভিডিও রেকর্ড আমাদের কাছে নেই তাই অনুমোদনকারীরা অস্বীকার গেলে কিছু করার নেই।

Facebook Comments

3 মন্তব্য

  1. কাওরান বাজার থেকে যাতে কলা না কিনতে হয়, সেজন্যেই তো ঢাকাতে বাস করিনি কখনো। আর এখন তো কাওরান বাজারে যাওয়ারই প্রশ্ন আসে না। বিএনপি অন্তত আমার ভোটটা পেলো না। রক্ষে!

    অঃটঃ হা হা রিএ্যাক্ট দেয়ার অপশন চাই।

    • আমার সাইটে প্রথম মন্তব‍্যকারী হিসেবে আপনার জন‍্য রয়েছে কেয়া কসমেটিক লিমিটেডের পক্ষ থেকে মহা মূল‍্যবান…..

  2. কাওরান বাজার হতে কলা কিনলে আপনি মৌলবাদী কার আপনাকে আগে কিনতে হবে প্রথমে আলু তার পর অন্য কিছু

কিছু বলুন

দয়া করে মন্তব‍্য করুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.