একজন পুরুষ নারীর প্রতি যৌন সহিংসতা করে, আর হাজার হাজার পুরুষ সহিংসতার শিকার নারীর দিকে অভিযোগের তীর ছোঁড়ে। নারী নিজের দোষে সহিংসতার শিকার হয়েছে, এই আবর্জনা কপচাতে গিয়ে দুধ, মিষ্টি, মাছি, পিপড়া, কলা, বাঘ, ভল্লুকসহ দুনিয়ার উদাহরণ টানে। কিন্তু এই কথা বলে না যে, এই সহিংসতার ঘটনায় একজনই অপরাধী, যে সহিংসতা করেছে।

একজন নারী যৌন সহিংসতার শিকার হলে পুরুষ সমাজ এর একশ একটা কারণ বের করে, যার একটিও সহিংস পুরুষটিকে অভিযুক্ত করে না। কোন না কোনভাবে, কোন না কোন ত‍্যানা পেঁচিয়ে তারা প্রমাণ করার চেষ্টা করে নারীটি দুশ্চরিত্র, ওই নারী খারাপ, ওই নারী এই সহিংসতা ডিজার্ব করে ইত‍্যাদি ইত‍্যাদি। অথচ কোন অযুহাতেই নারী কিংবা পুরুষ, অর্থাৎ একজন মানুষের প্রতি সহিংসতা চালানো যাবে না। তা যৌন সহিংসতা হোক আর অযৌন সহিংসতা হোক।

একজন কী পরলো, কী খেলো, কোথায় গেলো, কিভাবে গেলো, তার কোন কিছুই আপনাকে অপরাধ করার বৈধতা দেয় না। যৌন সহিংসতায় একজনই অপরাধী, যে সহিংসতা করেছে। সহিংসতার যদি হাজারটা কারণও থাকে, এর প্রত‍্যেকটি কারণ অপরাধীকে অভিযুক্ত করবে, শিকারকে নয়।

অনলাইনে কিংবা অফলাইনে ধর্ষকামী পুরুষেরা যৌন নিপীড়নের লক্ষ‍্যে যেসব অযুহাত খোঁজেন, তার কয়েকটির ব‍্যবচ্ছেদ করার চেষ্টা করলাম। গ‍্যালারিটি পূর্বে ফেসবুকে প্রকাশিত। খুব সামান‍্য পরিবর্তন করে পুনরায় প্রকাশ করা হলো।

১. চেয়ে থাকা মানেই সমর্পন নয়

২. পোশাক কখনো অনুমতিপত্র নয়

৩. সেক্স বিষয়ক কথা বলা মানেই সেক্স করতে রাজি হওয়া নয়

৪. নিরাপদ ভেবেই একটি মেয়ে আপনার সাথে বেড়াতে যায়

৫. নাচ সুন্দর, নিপীড়ন অপরাধ

৬. কে একা বের হবে আর কে সঙ্গীসহ বের হবে, এটা তার সিদ্ধান্ত

৭. স্বাধীনতা সবার জন‍্য

৮. দ্বিপাক্ষিক সকল বিষয়ে উভয়পক্ষের সম্মতি প্রয়োজন

Facebook Comments

কিছু বলুন

দয়া করে মন্তব‍্য করুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.